musfiq_with_wife

বাবা হচ্ছেন মুশফিক

সন্তানের বাবা হচ্ছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম। সব কিছু ঠিক থাকলে খুব শিগগিরই তার স্ত্রী জান্নাতুল কিফায়াত মন্ডির কোলজুড়ে আসছে তাদের অনাগত সন্তান। বর্তমানে মেডিক্যাল চেক আপ করাতে এই দম্পতি থাইল্যান্ডে অবস্থান করছেন।

চলমান বিপিএল এবং তার আগে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে টানা ব্যর্থতার বৃত্তে বন্দি ছিলেন মুশফিক। গতকাল (রোববার) হারিয়েছেন টাইগারদের টেস্ট দলের নেতৃত্বও। আর এই বিচ্ছেদের মধ্যেই আনন্দের সুর নিয়ে এল এই সুখবর।

২০১৩ সালের অক্টোবরে জান্নাতুল কিফায়াত মন্ডির সাথে মুশফিকের বাগদান সম্পন্ন হয়। এর প্রায় এক বছর পর ২০১৪ সালের ২৫শে সেপ্টেম্বর এই জুটি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। গায়ে হলুদ অনুষ্ঠিত হয় ২৪ সেপ্টেম্বর ও বিবাহোত্তর সংবর্ধনা হয় ২৭ সেপ্টেম্বর। জান্নাতুল কিফায়াত মন্ডি ব্যবসায় প্রশাসনে অনার্স সম্পন্ন করেছেন ঢাকার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে।

jagonews24

ক্রিকেটারদের শতভাগ পাওনা পরিশোধ করলো সিলেট সিক্সার্স

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) নিজেদের প্রথম অংশগ্রহণের সবক্ষেত্রেই নতুন দৃষ্টান্ত তৈরির চেষ্টা করেছে নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজি সিলেট সিক্সার্স। সবার আগেই দেশি-বিদেশি ক্রিকেটারদের শতভাগ পাওনা পরিশোধ করেছে দলটি। বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের নির্দেশনা অনুযায়ী টুর্নামেন্ট শেষের এক মাসের মধ্যে শতভাগ পাওনা পরিশোধ করতে হবে ক্রিকেটারদের। কিন্তু সিলেটের ফ্রাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট শেষ হওয়ার আগেই সবাইকে পারিশ্রমিক তুলে দিয়েছে।

হোম ভেন্যু সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দারুণ শুরুর পর সুপার ফোরে খেলার সম্ভাবনা তৈরি করেছিল সিলেট সিক্সার্স। পয়েন্ট টেবিলে শেষ পর্যন্ত পঞ্চমস্থান নিয়ে টুর্নামেন্ট শেষ করলেও, মাঠে নাসির-থারাঙ্গা-আন্দ্রে ফ্লেচারদের পারফর্মেন্সে দারুণ সন্তুষ্ট ফ্রাঞ্চাইজি কর্ণাধাররা। পূর্ণ পেশাদারিত্ব ধরে রাখার পাশাপাশি নতুন মৌসুমে আরও প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ দল গড়ার অঙ্গীকার সিলেট সিক্সার্স কর্তৃপক্ষের।

সিলেট সিক্সার্সের চেয়ারম্যান শাহেদ মুহিত জানান, ‘বিপিএলে নিজেদের প্রথম অংশগ্রহণ হলেও, স্বল্প সময়ের মধ্যে ভালো দল গড়ার চেষ্টা ছিল। মাঠে দলের পারফর্মেন্সে আমরা খুশি। সিলেটের সমর্থকদের মতো আমাদেরও প্রত্যাশা ছিলো আরও ভালো করার। শেষ পর্যন্ত সেটি না হলেও, আমরা হতাশ নয়। নতুন মৌসুমে পূর্ণ উদ্যোমে সেরা দল গড়ার চেষ্টা থাকবে আমাদের।’

সিলেট সিক্সার্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়াসির ওবায়েদ জানান, ‘সবার আগে পাওনা পরিশোধ করে আমরা দেশি-বিদেশি ক্রিকেটারদের একটা বার্তা দিতে চেয়েছি। সেটি হল, সিলেট সিক্সার্স শতভাগ পেশাদারিত্বের মানসিকতা নিয়েই বিপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়েছে। যেখানে ক্রিকেটারদের স্বার্থকে সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে।’

বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের নির্দেশনা অনুযায়ী টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই অংশগ্রহণকারী সব ক্রিকেটারের কমপক্ষে ৫০ ভাগ পাওনা পরিশোধ করতে হয়। সে অনুযায়ী আগেই নিজেদের পাওনার অর্ধেক বুঝে পায় ক্রিকেটাররা। এবার বাকি অর্থ বুঝে পেয়েছেন তারা।

jagonews24

Check Also

BAN vs ZIM Live – Bangladesh vs Zimbabwe Live – 2nd ODI Live

টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের উইকেট কতটা ব্যাটিং বান্ধব সেটা প্রথম ম্যাচেই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Share
Pin