“দেখুন, সামনে আরো খেলা আছে”

সাম্প্রতিক সময়ে ধর্ষণের ঘটনা গুলো নিয়ে কোনো কোনো মহল রাজনৈতিক খেলা খেলছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। এবং বিশেষ করে দেশের প্রধান বিরোধী দল হিসেবে পরিচিত বিএনপি এবং স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তি জামাত এই ধর্ষণের ঘটনা কে উস্কে দিয়ে এটিকে একটি রাজনৈতিক রূপ দেয়ার পরিকল্পনা নিচ্ছে এমন তথ্যই সরকারের কাছে এসেছে।

এবং সাম্প্রতিক সময়ে দেখা যাচ্ছে যে একটি সামাজিক ব্যাধি নিয়ে বিএনপির রাজনৈতিক আন্দোলনের চেষ্টা করছে এবং বিভিন্ন রকম কর্মসূচি গ্রহণ করছে ।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, বিএনপি যে কোনো কর্মসূচি গ্রহণ করতে পারে কিন্তু যেকোনো সমস্যা কে রাজনৈতিক তকমা দিলে সমস্যার মূল উৎপাটন করা এবং সমস্যার গভীরে যাওয়া সম্ভব হয় না। বিএনপি সেই কাজটি করছে।

সাম্প্রতিক সময়ে বিএনপি`র একাধিক নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে যে, লন্ডনে পলাতক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক জিয়া এখন সক্রিয় হয়েছেন এবং তিনি বিভিন্ন নেতার সঙ্গে কথা বলছেন। বিএনপির একাধিক নেতা বলেছেন তারেক জিয়ার সঙ্গে তৃণমূলের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ আছে।

প্রত্যন্ত অঞ্চলের নেতাকর্মীদের সাথে তারেক জিয়া নিয়মিত কথা বলেন। আর এ সমস্ত কথায় তিনি তাদেরকে এ ধরনের অপরাধ গুলোকে উসকে দিচ্ছে এমন তথ্য প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে। গতকাল তারেক বিএনপির স্থায়ী কমিটির দুজন সদস্যর সঙ্গে কথা বলেছেন এবং তাদেরকে ধর্ষণবিরোধী আন্দোলনকে আরো বেগবান এবং জোরদার করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে তারেক বলেছেন, একদিনও আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না এবং আন্দোলনের ব্যাপ্তি বাড়াতে হবে। সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে যে বিএনপি মহাসচিবের সঙ্গে তারেক জিয়ার প্রায় আধাঘণ্টা টেলি আলাপ হয়েছে এবং পুরো সময়টাতেই তারেক জিয়া আন্দোলন কিভাবে করতে হবে তার নির্দেশনা দিয়েছে লন্ডনের পলাতক বিএনপির সিনিয়ার ভাইস চেয়ারম্যান।

সূত্রমতে ফখরুলকে বলেছেন যে, বিএনপির উদ্যোগেই শুধু কর্মসূচি নয় বরং বিএনপির অঙ্গসংগঠন গুলো আছে তাদের উদ্যোগেও কর্মসূচি পালন করতে হবে। এবং সারাদেশে কর্মসূচি পালন করতে হবে ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শুধু ধর্ষণ নিয়ে বড় ধরনের আন্দোলন কতটা সফল হবে বা এই আন্দোলন আদৌ সরকার পতনের আন্দোলনের দিকে নিয়ে যাওয়া যাবে কিনা এ নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন তারেক জিয়ার কাছে। কারণ মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন ইতিমধ্যে সরকার যা যা করণীয় সবই করছে বিশেষ করে যারা অভিযুক্ত তাদেরকেই নির্মোহভাবে গ্রেপ্তার করছে এবং আইনের আওতায় আনছে।

এ অবস্থায় শুধু ধর্ষণ নিয়ে আন্দোলন করে সেই আন্দোলনকে সরকারবিরোধী আন্দোলনে নিয়ে যাওয়াটা এতো সহজ হবে না । এর জবাবে তারেক জিয়া বলেছেন, দেখুন সামনে আরো খেলা আছে । কি খেলা আছে বা সামনে কী ঘটতে যাচ্ছে সেটির ব্যাখ্যা দেননি তারেক জিয়া । তবে প্রতিবার বাংলাদেশের যখন কোনো না কোনো বিষয় নিয়ে আন্দোলন বা সংগ্রাম হয় তখনই তারেক জিয়া জেগে ওঠেন এবং তিনি বিএনপিকে এ আন্দোলনকে উস্কে দেয়ার জন্য ব্যবহার করেন।

স্মরণযোগ্য যে, এর আগেও কোটা বিরোধী আন্দোলন হয়েছিল তখন তারেক বিএনপিপন্থী এক শিক্ষককে টেলিফোন করে এই আন্দোলনে শিক্ষকদেরকে মাঠে নামার জন্য নির্দেশনা দিয়েছিলেন। নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের সময় তারেক আমির খসরু মাহমুদ এর সাথে টেলি আলাপ করে রাস্তায় নেমে একটা অশান্তি সৃষ্টির জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন।

এখন তারেক জিয়ার তৃণমূলের সঙ্গে কি আলাপ করছেন বা তাদেরকে দিয়ে কি এ ধরনের সামাজিক অপরাধে জড়িয়ে পড়া বা ভাড়াটে লোক দিয়ে এ ধরনের অপরাধ করানোর জন্য নির্দেশনা দিচ্ছেন কিনা সেটি খতিয়ে দেখা দরকার বলে অনেকে মনে করছেন। কারণ মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সাথে তারেক জিয়ার কথোপকথনের থেকে একটা স্পষ্ট ইঙ্গিত পাওয়া যায় সামনে আরো কিছু করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হচ্ছে।

বিএনপি জামায়াত ২০০১ সাল থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত যখন ক্ষমতায় ছিল তখন এরকম অনেক পরিকল্পিত ঘটনা ঘটিয়েছিল। যার একটি বড় উদাহরণ হল একযোগে সারাদেশে সিরিজ বোমা হামলার ঘটনা।

আর এখন সরকারকে বেকায়দায় ফেলার জন্য সারা দেশে নারীর ওপর নিপীড়ন নির্যাতনের ঘটনা পরিকল্পিতভাবে ঘটানো হয় কিনা কিংবা যে ঘটনাগুলো এখন হঠাৎ করে ঘটছে সেই ঘটনার পেছনে অন্য কারো ষড়যন্ত্রর হাত আছে কিনা উদ্দেশ্যমূলকভাবে এ ঘটনাগুলো ঘটানো হচ্ছে কিনা সেটি খতিয়ে দেখা দরকার বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা।

পাশাপাশি এখন ছোটখাটো ঘটনাগুলোকে ও গণমাধ্যমে ফলাও করে প্রচার করার পেছনেও কোনো পরিকল্পিত উদ্দেশ্য আছে কিনা সেটিও তদন্ত হওয়া দরকার বলে মনে করেন অনেকে। কারণ তারেক জিয়া যখন বলছেন সামনে অনেক খেলা আছে তার মানে এটি নিছক একটি সামাজিক অপরাধ না এটি পরিত্যক্ত রাজনীতিবিদরা এই ইস্যুকে নিয়ে মাঠ গরম করার একটা কৌশলও গ্রহণ করতে পারেন বলে মনে করেন অনেকে।

বাংলা ইনসাইডার

Check Also

হাজী সেলিমের হাতে জিম্মি লালবাগ?

গতকাল রাতে হাজী সেলিমের পুত্রের হাতে একজন নৌ-বাহিনী কর্মকর্তার লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনার পর মুখ খুলেছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Share
Pin