bnp-flag

করোনা : দেশব্যাপী বিএনপির ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত

করোনাভাইরাসের এ দুর্যোগকালীন সময়ে দেশব্যাপী ত্রাণ বিতরণ তৎপরতা চালাচ্ছে দেশের অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক দল বিএনপি। লকডাউনের কারণে দুর্ভোগে পড়া দুস্থ ও নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রেখেছে।

রোববার (১২ এপ্রিল) বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে পাঠানো এক তথ্য বিবরণীতে এ সব জানানো হয়।

সেখানে বলা হয়েছে-

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের তত্ত্বাবধানে ঠাকুরগাঁও জেলা সভাপতি মো. তৈমুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সাল আমিনের নেতৃত্বে দুস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত রয়েছে।

স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনের নেতৃত্বে কুমিল্লা উত্তর জেলার মেঘনা ও তিতাস উপজেলায় ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত আছে। স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য মির্জা আব্বাস, মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের নেতৃত্বে ঢাকার মতিঝিল, পল্টন, শাহজাহানপুর, খিলগাঁও, সবুজবাগ এলাকায় ইতিমধ্যে ৩ হাজার দুস্থ পরিবারকে ত্রাণ সহযোগিতা প্রদান করা হয়েছে।

স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়ের তত্ত্বাবধানে বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাড. নিপুণ রায় ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে ইতিমধ্যে ৭ হাজার পরিবারকে ত্রাণ সামগ্রী দিয়েছেন। বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান তার নির্বাচনী এলাকায়, বিএনপি নেতা ডা. সালাহউদ্দিন বাবুর নেতৃত্বে সাভারে, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার আবু আশফাকের নেতৃত্বে দোহারে, বিএনপি নেতা তমিজ উদ্দিনের নেতৃত্বে ধামরাইয়ে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত আছে।

বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খানের তত্ত্বাবধানে নরসিংদীর পলাশে, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকনের নেতৃত্বে সদর উপজেলায়, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভুইয়া জুয়েলের নেতৃত্বে মনোহরদীতে, মনজুর এলাহী ও সুলতান মোল্লার নেতৃত্বে শিবপুরে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনগুলোর উদ্যোগে বিভিন্ন সময় নয়াপল্টনের বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে ও ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন স্থানে জনসাধারণের মাঝে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, সাবানসহ বিভিন্ন করোনা প্রতিরোধী সামগ্রী বিতরণ করেন। এছাড়া তিনি গরিব ও দুস্থ মানুষদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রীও বিতরণ করেছেন।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান প্রফেসর ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন ঢাকা মহানগরের বিভিন্ন স্থানে মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, গ্লাভস, পিপিই ও সাবানসহ বিভিন্ন ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছেন। এছাড়া তার উদ্যোগে গত ২৭ মার্চ থেকে প্রতিদিন প্রায় ৫০ জন হতদরিদ্র মানুষকে রান্না করা খাবার পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। এছাড়াও ডা. জাহিদ ময়মনসিংহ মহানগর এবং দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ, বিরামপুর, ঘোড়াঘাট, হাকিমপুর উপজেলা ও পৌরসভাসমূহে স্থানীয় বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সহায়তায় অসহায় শ্রমজীবী মানুষদের খাদ্য সহায়তা কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলনের তত্ত্বাবধানে গাজীপুরের কালিগঞ্জে, বিএনপি নেতা মজিবুর রহমান, সায়েদুল ইসলাম বাবুল ও ভিপি ইব্রাহিম কালিয়াকৈরে, খান কাজী শহীদুল্লাহ শহীদ, শাহজাহান কবির, আক্তার মাস্টার ও শাহাদাৎ হোসেন সবুজ শ্রীপুরে, রিয়াজুল হান্নান কাপাসিয়ায়, সোহাগ হোসেন, শওকত চেয়ারম্যান, সুমন সরকার ও সালাহউদ্দিন সরকার গাজীপুর মহানগরের বিভিন্ন স্থানে ছিন্নমূল মানুষের মাঝে ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছেন।

করোনাভাইরাসের দুর্যোগকালীন জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল ঢাকা মহানগরসহ দেশব্যাপী বিভিন্ন এলাকা ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে।

বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আফরোজা খান রিতা, বিএনপি নেতা জিন্নাহ কবির, মিজানুর রহমান লিটন, মীর মানিকুজ্জামান মানিকগঞ্জ জেলার বিভিন্ন উপজেলা ও পৌরসভায় দুস্থদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রেখেছেন।

বিএনপি নেতা লুৎফর রহমান খান আজাদ টাঙ্গাইলের ঘাটাইল, আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী মির্জাপুরে ত্রাণ কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। দলের স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু মুন্সীগঞ্জ জেলার শ্রীনগর, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. আব্দুস সালাম আজাদ, বিএনপি নেতা শাহজাহান খান, বাদল হাওলাদার, হাবিবুর রহমান চাকলাদার, আতাউর রহমান, ইয়াসিন শেখ, হাসান উদ্দিন মোল্লা লৌহজংয়ে, সোহেল আহমেদ সিরাজদিখানে, জসিম উদ্দিন ও ওবায়দুর রহমান বকুল মীরকাদিমে ত্রাণ বিতরণ করছেন।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী তার নির্বাচনী এলাকা মাগুরার শালিখা, মোহাম্মদপুর ও দক্ষিণ মাগুরায় খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছেন। এছাড়া মোহাম্মদপুর ও শ্রীপুর উপজেলা বিএনপিও তাদের স্ব-উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছে।

দলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিতে নেতৃত্বে যশোর সদর উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে এবং যশোর পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে ২ হাজার পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছেন।

বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুর তত্ত্বাবধানে সিরাজগঞ্জ সদর, রায়গঞ্জ ও তাড়াশে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। বিএনপির চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী অ্যাডভোকেট শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাসের নেতৃত্বে পাবনা সদর, কেন্দ্রীয় নেতা সেলিম রেজা হাবিবের নেতৃত্বে সুজানগর ও বেড়া উপজেলায়, ফজলার ফকিরের নেতৃত্বে বেড়া পৌরসভায়, মজিবর রহমান ও রাজিউল হাসান বাবুর নেতৃত্বে ভাংগুড়া উপজেলায়, আনোয়ারুল ইসলাম ও হীরার নেতৃত্বে চাটমোহর উপজেলায় এবং চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিবের তত্ত্বাবধানে ঈশ্বরদী উপজেলায় বিএনপির ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।

বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও সাবেক মেয়র মিজানুর রহমান মিনু, সাবেক মেয়র ও মহানগর বিএনপির সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মিলনের নেতৃত্বে ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। আবু সাঈদ চাঁদের নেতৃত্বে চারঘাট ও বাঘা উপজেলা এবং কাঁটাখালি পৌরসভায় ত্রাণ বিতরণের কাজ চলছে।

তানোরে পৌর মেয়র মিজান, নওহাটায় মকবুল হোসেন, বাগমারায় ডি এম জিয়াউর রহমান, পুঠিয়া পৌরসভায় আল মামুন খান এবং দুর্গাপুরে ওয়াহেদ মোল্লা ও সাকলায়েন চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে বিএনপির ত্রাণ কার্যক্রম চলছে। জয়পুরহাট জেলায় বিএনপি নেতা ফজলুর রহমান, মমতাজ মণ্ডল ও নাফিজুর রহমান পলাশের নেতৃত্বে সদর উপজেলায় ত্রাণ বিতরণ চলছে। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সংসদ সদস্য হারুনুর রশিদ হারুনের তত্ত্বাবধানে চাঁপাইনবাগঞ্জে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত রয়েছে বলে জানানো হয় বিবৃতিতে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘দুস্থ মানুষের মধ্যে আমরা সাধ্যমতো ত্রাণ বিতরণ করছি। দেশের অন্যতম বৃহৎ রাজনৈতিক দল হিসেবে এটা বিএনপির কর্তব্যের মধ্যে পড়ে বলে আমি মনে করি।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.