সরকারের অবহেলায় স্বাস্থ্যখাতে চরম সঙ্কট : রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, যখন থেকে করোনাভাইরাসের প্রার্দুভাব শুরু হয়েছে, সরকার তখন থেকেই কোনো পদক্ষেপ নেয়নি বলেই মেডিকেল সেক্টর করোনাভাইরাস প্রতিরোধে কোনো ব্যবস্থা নিতে পারছে না। সরকারের অবহেলার কারণেই স্বাস্থ্যখাতে চরম সঙ্কট বিরাজ করছে। এই সঙ্কটের মধ্যেও অনেক চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মী নিবেদিতভাবে কাজ করছেন। তাদের ধন্যবাদ জানাই। যার যার অবস্থানে থেকে সবাইকে সচেতনভাবে কাজ করতে হবে।

শুক্রবার রাজধানীর হলি ফ্যামিলি হাসপাতালের চিকিৎসকদের মাঝে পিপিই বিতরণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশন (জেডআরএফ) ও ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) পিপিই বিতরণের এ আয়োজন করে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রিজভী।

জেডআরএফ ও ড্যাবের এই কার্যক্রমের সাথে সম্পৃক্ত সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে রিজভী বলেন, সমস্ত দেশবাসী এখন বৈশ্বিক মহামারী করোনার ভয়ে ভীত এবং মারাত্মক সঙ্কটের মধ্যে রয়েছে। পরীক্ষিতদের মধ্যে করোনা রোগী সনাক্তকরণের হার প্রতিদিনই আশঙ্কাজনকহারে বাড়ছে। ঢাকাসহ সারাদেশর ২০ জেলায় এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসের থাবা লক্ষ্য করা গেছে। এই সংকট মোকাবিলায় আমাদের জাতীয় ঐক্য দরকার।

তিনি বলেন, সত্যিকারার্থে জনস্বাস্থ্য নিয়ে এ সরকার কিছুই করেনি। সরকারের মন্ত্রীদের মুখে দেশে উন্নয়নের জোয়ারের খবরে এতদিন দেশ ভেসে গেছে! তাহলে স্বাস্থ্যে খাতের এত বেহাল দশা কেন?

তিনি বলেন, আমাদের এই দরিদ্র দেশে এই মুহুর্তে দৈনিক আয়ের ওপর নির্ভরশীল কোটি কোটি মানুষ এখন কর্মহীন। তারা যদি সামাজিক দূরত্বের দেয়াল ভেঙে বেরিয়ে আসেন সংক্রমণ প্রতিরোধ তখন অসম্ভব হয়ে পরবে। কারণ ক্ষুধার আক্রমণ করোনার চেয়েও ভয়ঙ্কর। তাই রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে আপদকালীন সহযোগীতাই পারে করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে। এ লক্ষ্যে ইতিমধ্যেই বিএনপি বেশকিছু প্রস্তাবনা পেশ করেছে।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- ড্যাব সভাপতি অধ্যাপক ডা. হারুন আল রশিদ, মহাসচিব অধ্যাপক ডা. মো. আব্দুস সালাম, জেডআরএফের আহমেদ শফিকুল হায়দার পারভেজ, অধ্যাপক ড. মো. মোর্শেদ হাসান খান, ডা. শাহ মুহাম্মদ আমান উল্লাহ্, প্রকৌশলী মাহবুব, ব্যারিস্টার মীর হেলাল, অধ্যাপক ড. আব্দুল করিম, এ্যামট্যাবের বিপ্লবুজ্জামান বিপ্লব প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.