বিএনপিকে ছোট করার জন্য সরকার প্রতিজ্ঞাবদ্ধ : দুদু

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, বেগম খালেদা জিয়া, স্বাধীনতার ঘোষক জিয়াউর রহমানের পরিবার ও বিএনপিকে ছোট করার জন্য যা যা বলার এই সরকার প্রতিনিয়ত সেগুলো বলে যাচ্ছে।

মঙ্গলবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে জাতীয়তাবাদী প্রজন্ম দল আয়োজিত প্রতিবাদ সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

দুদু বলেন, যে দুই কোটি টাকার জন্য বেগম জিয়াকে জেলে রাখা হয়েছে, একবারও কোর্ট জানতে চায়নি সেই টাকা বেড়ে কীভাবে আট কোটি টাকা হয়েছে। এটা কোর্ট জানতে চায়নি, তার মানে কোর্ট যদি জানে ২ কোটি টাকা আর ৮ কোটি টাকা হয়েছে, তাহলে তো বেগম জিয়াকে রাখা যাবে না। যে যুক্তিগুলো বেগম জিয়ার পক্ষে যায় সেই যুক্তিগুলো কোর্ট আনেনি। কোর্ট কোনটা বিবেচনা নেবে আর কোনটা নেবে না তার থেকেও বড় কথা যদি কোর্ট ন্যায়ের পক্ষে থাকে, তাহলে সেই বিচারকের অবস্থা ভালো যাবে না ।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, স্বাধীনতা যুদ্ধে ৩০ লাখ লোক শহীদ হয়েছে, দুই লাখ মা-বোনের সম্ভ্রম হারিয়েছে। তারপরও আমরা দেখছি স্বাধীনতা নামক জিনিসটি আমাদের কাছে ধরা দেয়নি। গণতন্ত্র নামক জিনিসটা আমরা কখনো পেয়েছি কখনো পায়নি।

তিনি আরও বলেন, মানুষ ভোট দিতে পারে না, এটা প্রধানমন্ত্রী ও পুলিশের আইজিও জানেন। এটা নির্বাচন কমিশনারও জানেন, এটা আল্লাহও জানেন।

দুদু বলেন, কেয়ারটেকার (তত্ত্বাবধায়ক) সরকার ব্যবস্থার জন্য আমাদের আজকের প্রধানমন্ত্রী এমন কোনো কাজ নেই যে করেননি। কেয়ারটেকার সরকার ব্যবস্থা জন্য বর্তমান প্রধানমন্ত্রী আন্দোলন করেছিলেন, আর আমরা সংসদে সেই আইন পাস করেছিলাম।

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে দুদু বলেন, মানুষের ভোটটা নিশ্চিত করেন। এটা দেশের জন্য আওয়ামী লীগের জন্য বিএনপির জন্য, সবার জন্য ভালো হবে। সবাই যদি আপনাকে ভোট দেয় তাহলে কারও আপত্তি নেই। কিন্তু আপনার আপত্তি, বিএনপিকে যদি মানুষ ভোট দেয়, সেই ভয়ে আপনি ভোট করে গেছেন।

জাতীয়তাবাদী প্রজন্ম দলের সভাপতি মো. জনি হোসেন সরকারের সভাপতিত্বে এবং দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি কে এম রকিবুল ইসলাম রিপনের সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক
অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম, কৃষক দলের কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কমিটির সদস্য লায়ন মিয়া মো. আনোয়ার, সাধারণ সম্পাদক মো. মহসীন হাবিব প্রমুখ।

সূত্র: জাগো নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.