খালেদার মুক্তি নিয়ে দ্বিধায় বিএনপি

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি নিয়ে দলের নেতারা দ্বিধা-দ্বন্দ্বের মধ্যে রয়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। বুধবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নীচতলায় দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫৫তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে যুবদল আয়োজিত দোয়া মাহফিলে তিনি এ মন্তব্য করেন।

গয়েশ্বর বলেন, আজকে এই দোয়া-মাহফিলের মধ্য দিয়ে অনেকটাই নীরবে আমরা আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের জন্মবার্ষিকী পালন করছি। কিন্তু সবকিছু যদি নীরবে আমরা অপেক্ষা করি তাহলে আমাদের দায়িত্ববোধগুলো অনাদিকাল পর্যন্ত এভাবে নীরবেই পালন করবো। জন্মদিন বলতে যে উৎসাহ বোঝায় সেভাবে আমরা কখনোই পালন করতে পারব না।

তিনি বলেন, আমরা আছি একটি দ্বিধা দ্বন্দ্বের মধ্যে। নেত্রীর মুক্তি প্যারোলে নাকি জামিনে। কিন্তু নেত্রীর মুক্তি যে রাজপথে হয় কেন জানি আমরা এ কথাগুলো বিবেচনায় নিচ্ছি না। কী কারণে যেন মুক্তির জন্য দোয়া মাহফিল মানববন্ধন প্যারোল এবং জামিন নিয়ে বারবার আলোচনা করছি।

গয়েশ্বর বলেন, মনে হয় গণতন্ত্রের নেত্রী খালেদা জিয়ার আমাদের কাছে এই ধরনের আচরণ প্রাপ্য নয়। আমরা যদি খালেদা জিয়ার জন্য আন্দোলন করতে গিয়ে লক্ষ লোক কারাগারে যাই সেটি হবে খালেদা জিয়ার প্রতি যথার্থ সম্মান প্রদর্শন করা। আমরা যদি রাজপথে গুলি খেয়ে মারা যাই সেটি হবে গণতন্ত্রের নেত্রী খালেদা জিয়ার প্রতি দৃঢ় মনোবল প্রদর্শন করা।

জাতীয়তাবাদী যুবদলের সভাপতি সাইফুল আলম নীরবের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকুর সঞ্চালনায় দোয়া মাহফিলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ বক্তব্য দেন।

সূত্র: জাগো নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.