khaleda_05

শনিবার ভাইস চেয়ারম্যানদের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক খালেদা জিয়ার

দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে দলের ভাইস চেয়ারম্যানদের সঙ্গে বেঠক ডেকেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।শনিবার রাতে গুলশানে চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

দলের দায়িত্বশীল একটি সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে। দলের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তগ্রহণে মাঝে মধ্যে নীতিনির্ধারক ফোরাম স্থায়ী কমিটির সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করেন বিএনপি চেয়ারপারসন। তবে ভাইস চেয়ারম্যান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও যুগ্ম মহাসচিবদের সঙ্গে আলাদা করে বৈঠকে বসেন না তিনি। ব্যক্তিগতভাবে দলের ভাইস চেয়ারম্যান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও যুগ্ম মহাসচিবরা বিভিন্ন বিষয়ে চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে কথা বলেন।

এদিকে বুধবার রাতে জোটের শরিক দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন খালেদা জিয়া। বৈঠকে আসন্ন রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান বিএনপি চেয়ারপারসন। শরিক দলের নেতারা এ ব্যাপারে খালেদা জিয়াকে আশ্বস্ত করেন। আগামী জানুয়ারির প্রথম দিকে জোটের শীর্ষ নেত্রী খালেদা জিয়ার বিভাগীয় শহর ও কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ জেলা শহর সফরের সিদ্ধান্ত হয়।

কেন্দ্র ও স্থানীয় বিএনপির সঙ্গে সমন্বয় করে সুবিধাজনক সময় সফরের দিনক্ষণ চূড়ান্ত করা হবে। এছাড়া বিজয়ের মাস ডিসেম্বর মুক্তিযোদ্ধাদের নেতৃত্বে একটি বড় আকারের বিজয় র‌্যালীর ব্যাপারেও আলোচনা হয়। বৈঠকে অংশ নেয়া জোটের কয়েকজন নেতা এ তথ্য জানিয়েছেন। তারা জানান, বৈঠকে খালেদা জিয়ার দেশে ফেরার দিন বিমানবন্দর সড়ক, রোহিঙ্গাদের দেখতে যাওয়ার সময় ঢাকা থেকে কক্সবাজার মহাসড়ক এবং সর্বশেষ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিপুল মানুষের অংশগ্রহণে শান্তিপূর্ন সমাবেশ অনুষ্ঠান হওয়ায় বিএনপি চেয়ারপারসনকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান জোটের শরিক দলের নেতারা।

শীর্ষনিউজ

তারেক রহমানের প্রতি অত্যাচার বন্ধ করে পেয়াজের দামের দিকে নজর দেন: পার্থ

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান চ্যালেঞ্জ দিয়েছিলেন, যে তার বিরুদ্ধে যত অপপ্রচার চলছে তা প্রমাণিত করতে পারলে তিনি আর রাজনীতি করবে না। কিন্তু সেই চ্যালেঞ্জ কেউ নেয়নি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের মিলনায়তনে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫৩ তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন তিনি।

সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ ছাত্র ফোরাম ও উত্তরাঞ্চল ছাত্র ফোরাম। ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান পার্থ এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, আইন সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামাল, সহ প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক ড. মোর্শেদ হাসান খান, সহ-দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু, সহ প্রচার সম্পাদক আমিরুল ইসলাম খান আলিম, সেচ্ছাসেবক দলের সহ-সভাপতি গোলাম সরোয়ার, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূইয়া জুয়েল, ছাত্রদলের সহ-সভাপতি নাজমুল হাসান,সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল কায়েস প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে নজরুল ইসলাম খান বলেন, দূরে বসেও তারেক রহমান তার রাজনৈতিক দায়িত্ব পালন করছেন। শেখ হাসিনা অনেক আগে থেকে প্রতিনিয়ত তারেকের বিরুদ্ধে সমালোচনা করছেন। বিএনপির এতো নেতা থাকতে কেনো তার বিরুদ্ধে এতো সমালোচনা এখন তা বুঝতে পারছি। প্রতি নিয়ত তারেকের বিরুদ্ধে মিথ্যে সমালোচনা করা হচ্ছে এমন কথা উল্লেখ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, কেউ প্রমাণিত করতে পারেনি তারেক রহমানের বিরুদ্ধে চলমান অপপ্রচার। আলোচনা সভায় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, তারেক রহমানের বিরুদ্ধে যে অপরাধ সাজানো হয়েছে, তা কেউ প্রমাণ করতে পারে নাই।

তারেক রহমানকে কারাগারে রেখে মেরুদণ্ড ভেঙ্গে দেওয়া হয়েছে। এরপরেও কেন তার বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগের এতো ক্ষোভ এমন কথা জানতে চেয়ে বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, প্রতিহিংসার বহিঃপ্রকাশের কারণে তারেকের বিরুদ্ধে মামলা দেওয়া হয়েছে। ব্যক্তিগত আক্রমনের শিকার তারেক রহমান। তিনি বলেন, আইনের পথে হেটে এক বিচারক তারেক রহমানের পক্ষে রায় দিয়েছিলো।

কিন্তু সেই বিচারপতিকে পালাতে হয় দেশ ছেড়ে। দেশে কোনো বিচারপতি সত্য কথা বললে তাকে দেশ ত্যাগ করতে বাধ্যকরা হয় এস কে সিনহার মতো এমন কথা উল্লেখ করে রিজভী বলেন, বিচার বিভাগ, প্রশাসন, পার্লামেন্ট শেখ হাসিনার দখলে। কেউ যদি শেখ হাসিনার কথার বিপরীতে যায়, সে আর টিকতে পারবে না স্ব স্থানে।

ড. মোর্শেদ হাসান খান বলেন, তারেক রহমানকে রাজনীতি থেকে বিরত রাখার জন্যই ওয়ান ইলেভেনে মাইনাস টু ফর্মুলার বদলে মাইনাস ওয়ান ফর্মুলা চালু হয়। এজন্যই তার ওপর অমানবিক নিপীড়ন করা হয়। কিন্তু আল্লাহর রহমতে তিনি আমাদের মাঝে বেঁচে আছেন। ইনশাল্লাহ ২০১৮ সালে তার উপস্থিতিতে তার জন্মদিন পালন করবো। তাকে দেশে ফেরাতে ছাত্রদল সহ সবাইকে আন্দোলনের প্রস্তুতি নেয়ার উদাত্ত আহ্বান জানান তিনি

সভাপতির বক্তব্যে ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান পার্থ তিনি বলেন, দেশের ভবিষ্যৎ রাষ্ট্রনায়ক তারেক রহমানের প্রতি অত্যাচার বন্ধ করে পেয়াজের দামের দিকে নজর দেন। তিনি বলেন, পদ্মা সেতুর অর্থ নিয়ে যা শুরু করেছেন। সেই রকম পেয়াজ নিয়ে শুরু করেছেন। এখন সবাই পেয়াজকে পদ্মা ফল বলা শুরু করেছে।

সরকারের সমালোচনা করে পার্থ বলেন, আওয়ামী লীগের পতন দেশের মানুষ স্মরণ রাখবে।

Check Also

নির্বাচন পর্যন্ত মাঠে থাকবে বিএনপি : জাহাঙ্গীর

ঢাকা-১৮ আসনে উপনির্বাচনে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী এসএম জাহাঙ্গীর হোসেন বলেছেন, আওয়ামী লীগের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Share
Pin