তুমি কি সেই অাগের মতোই অাছো : কাদেরকে ওমর ফারুক

‘তুমি কি সেই অাগের মতোই অাছো, নাকি অনেক খানি বদলে গেছো, জানতে ইচ্ছে করে, খুব জানতে ইচ্ছে করে।’ ভারতের বিখ্যাত শিল্পী মান্না দে’র গানের এ কথাগুলো অাওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশ্যে গাইলেন যুবলীগের চেয়ারম্যান মো. ওমর ফারুক চৌধুরী।

শোকের মাস অাগস্ট উপলক্ষে মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর নাট্যমঞ্চে অাওয়ামী যুবলীগ অায়োজিত এক অালোচনা সভায় সড়ক-মহাসড়কের সমস্যার কথা তুলে ধরে তিনি এ গান গেলেন।

ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ্য করে ওমর ফারুক বলেন, সড়ক-মহাসড়কে নসিমন-করিমনসহ ছোট ছোট যানবাহন নিষিদ্ধ করেছেন, ভালো কথা। ছোট যান চলাচলের বিকল্প কিছু না করেই এটা যে করলেন তাতে কাজটা কি খুব ভালো হয়েছে। এ কাজ যে করেছেন, তাহলে অামার স্ত্রী অসুস্থ হলে তাকে হাসপাতালে নেব কী করে? অামার মেয়েটা কি ট্রাকে করে কলেজে যাবে? অামার বাড়িতো মহাসড়কের পাশে, অামি চলাচল করবো কেমন করে? মহাসড়কের পাশে যারা বসবাস করে তাদের জন্য কোনো বিকল্প রাস্তাতো রাখেননি।

তিনি বলেন, ‘ঈদের অাগে দুদিনের ব্যবধানে ৮০০ লোককে জামিন দেয়া হলো, মিনিটে কতজন জামিন পেয়েছেন তা জানতে ইচ্ছে করে। সচিবালয়ের চারপাশে এরা কারা? তা জানতে ইচ্ছে করে। সচিবালয়ের গায়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সাইনবোর্ডসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সাইনবোর্ড কেন? এসব প্রশ্ন ও বিবেকের জ্বালা মেটানোর জন্য অাপনাকে অাজ ডেকে এনেছি।’

তার পরে ওবায়দুল কাদের বক্তব্য দেন। কিন্তু ওমর ফারুক চৌধুরীর প্রশ্নগুলোর সরাসরি কোনো জবাব দেননি তিনি।

সেতুমন্ত্রী শুধু বলেন, ‘অামার কোনো গাফিলাতি নেই, কোনো অবহেলা নেই। তারপরও অামার ভুলত্রুটি থাকতে পারে। অামিতো মানুষ। তবে এটা বলতে পারি যে, গত সাত বছরে সড়কের জন্য যেসব মেগাপ্রকল্প নেয়া হয়েছে, তা অামারই হাতে নেয়া। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করে যাচ্ছি। অাপনি নিজেও জানেন, এ কাজগুলো করা খুব কঠিন।’

যুবলীগ চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক মহিউদ্দিন অাহমেদ মহি, প্রেসিডিয়াম সদস্য মোতাহার হোসেন সাজু, অানোয়ারুল ইসলাম, অধ্যাপক অামজাদ হোসেন, ড. অাহমেদ অাল কবির, বেলাল হোসাইন, অাতাউর রহমান অাতা, অাবদুস সাত্তার মাসুদ, মাহবুবুর রহমান হিরণ, মো. ফারুখ হোসেন, উত্তর যুবলীগের সভাপতি মাইনুল হোমেন খান নিখিল, দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন সম্রাট, সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চলনায় ছিলেন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হারুণ অর রশিদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.