হঠাৎ বিদেশি কূটনীতিকদের সঙ্গে খালেদার রায় নিয়ে বিএনপির বৈঠক

খালেদা জিয়ার রায় নিয়ে ঢাকায় নিযুক্ত বিভিন্ন দেশ ও সংস্থার বিদেশি কূটনীতিক ও প্রতিনিধিদের সঙ্গে বিএনপির হঠাৎ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে জাপান, ভারত, পাকিস্তান, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, সুইজারল্যান্ড, সৌদি আরব, কুয়েত, স্পেন, ডেনমার্ক, মরোক্ক, ভ্যাটিকান, থাইল্যান্ড ও নেপালসহ প্রায় ১০০টি দেশের ঢাকায় নিযুক্ত কূটনীতিক ও বিভিন্ন বিদেশি সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে বিএনপির কূটনৈতিক কোরের একটি প্রতিনিধি দল ও বিদেশি কূটনীতিকদের সাথে এই বৈঠক হয়। কূটনীতিক ও বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধি ছাড়াও বৈঠকে অংশ নিয়েছে ইউএসএআইডি-সহ ২০টি বিদেশি সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানের প্রধান ও কয়েকটি বিদেশি দাতা সংস্থার প্রতিনিধি।

বিএনপি সূত্র জানায়, খালেদা জিয়ার মামলার পুরো বিষয়টি তুলে ধরে একটি প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। এটিই কুটনীতিকদের হাতে তুলে দিয়েছে। তাদের সার্বিক চিত্র সম্পর্কে অবহিত করন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। মামলার এই রায় কীভাবে একটি শান্তিপূর্ণ নির্বাচনকে ক্ষতিগ্রস্ত করবে সেটিও তুলে ধরে বিএনপি।

বৈঠকে বিএনপি নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ড. মঈন খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদীন, ড. আসাদুজ্জামান রিপন, সাবিহ উদ্দিন, এনাম আহমেদ চৌধুরী ও ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা প্রমুখ।

তবে এই বৈঠককে নিয়মিত কর্মসূচি বলে দাবি করছে বিএনপি। ৮ ফেব্রুয়ারি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে এই বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছে।

এর আগে দলীয় সূত্র জানান, বৈঠকে ঢাকায় নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও হাইকমিশনার এবং অন্তত ২০টি বিদেশি সংস্থা ও প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে-যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, চীন, রাশিয়া, ভারত, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, সৌদি আরব, তুরস্ক, ইরান, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, নেদারল্যান্ডস প্রমুখ। এ ছাড়া ইউএনডিপি, জাইকা, ইউএসএআইডি, এডিপি, ওয়ার্ল্ড ব্যাংকসহ ২০টি বিদেশি সংস্থা এবং প্রতিষ্ঠানের প্রধানদেরও বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

এজন্য এজেন্ডা ঠিক করতে গত সোমবার রাতে গুলশান কার্যালয়ে বৈঠক করেছেন দলটির কুটনৈতিক কোরের সদস্য। বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে ওই বৈঠকে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ড. আবদুল মঈন খান, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক শ্যামা ওবায়েদ, বিএনপি নেতা ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। রাত ৮টার দিকে বৈঠকটি শুরু হয়ে প্রায় আড়াই ঘণ্টা স্থায়ী হয়।

প্রসঙ্গত, আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায় ঘোষণা করবে ঢাকার পঞ্চম জজ আদালত। জিয়া এতিমখানা ট্রাস্টে এতিমদের জন্য বিদেশ থেকে আসা অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে ২০০৮ সালের দায়েরকৃত আলোচিত মামলার দুই পক্ষের যুক্তিতর্কের শুনানি শেষে গত বৃহস্পতিবার ঢাকার পঞ্চম বিশেষ জজ মো. আখতারুজ্জামান রায়ের দিন ঠিক করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.