kader_photo

‘৯৬ সালে কৌশলে ক্ষমতায় এসেছি’ : কাদের – দেখুন বিস্তারিত

ক্ষমতার জন্য কখনো কখনো কিছু বিষয় ছাড় দিতে হয় বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন। ২৬ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি এর আয়োজন করে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ আমরা ৯৬ সালে কোন কৌশলে এসেছি তা আপনারা জানেন। ক্ষমতার রাজনীতিতে কিছু সময় ছাড় দিতে হয়। তা না হলে ক্ষমতায় আসতে পারতাম না। ক্ষমতায় এসেছি বলেই যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করতে পেরেছি। তা না হলে এটা স্বপ্ন ছিল।’

তিনি বলেন, ‘৯৬ সালে মোজাফফর হোসেন পল্টুকে না দিয়ে সাবের হোসেন চৌধুরীকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছিল। লালবাগের ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিনকে না দিয়ে দেওয়া হয়েছিল হাজী সেলিমকে। এখানেই ছাড় দেওয়া হয়েছিল। তা না হলে আমরা ক্ষমতায় আসতে পারতাম না। তার অর্থ এই না আমরা আমাদের আদর্শ থেকে দূরে সরে গেছি। ক্ষমতায় আসার জন্যই এই কৌশল করা হয়েছিল।’

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘রাজনীতিতে ভুল ক্রটি থাকবেই। এসব ভুল ত্রæটিকে আকড়ে ধরে রাজনীতি হয় না। স্বৈরাচার এরশাদকেও সাথে নিয়ে আমরা রাজনীতি করতেছি। এটাই বাস্তবতা।’

মন্ত্রী বলেন, ‘নির্বাচন সবার গণতান্ত্রিক অধিকার। এটা কেনো করুণার হবে? বিএনপিকে কেন করুণা করতে যাব। তারা তাদের অধিকার আদায়ে জন্য নির্বাচনে আসতে হবে।’

কাদের বলেন, ‘বিএনপি কিছু দিন আগে ইসির প্রশংসায় পঞ্চমুখ ছিল। এখন ইসি খুব খারাপ হয়ে গেছে। তাদের স্বার্থে আঘাত এলেই ইসি খারাপ। বিএনপিকে খুশি করার মতো আমাদের হাতে কিছু নেই। তাদেরকে খুশি করতে হলে ৩০০ আসন দিয়ে দিতে হবে।’

নারায়ণগঞ্জের ঘটনার ব্যাপারে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘নেত্রীর কড়া নির্দেশ তদন্ত সাপেক্ষে যেই অপরাধী হয় তাকেই কঠোর শাস্তি দেওয়া হবে। এমন অনেক নজির আছে। আমাদের দলের অনেক এমপি, মন্ত্রী আদালতের বারান্দায় ঘুরছেন।’

কাদের বলেন, ‘িবএনপি ক্ষমতায় এলে ২০০১ সালের চেয়েও বেশি ভয়ঙ্কর হবে তারা। মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তিকে পাকিস্তানের পক্ষের শক্তির সাথে কাজ করতে হবে। বিএনপির রুপ এমন ভয়ঙ্কর হবে।’

সাবেক বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহারিয়ার কবির, সাংবাদিক শাহীন রেজা নূর, মেজর জেনারেল (অব:) আবদুর রশিদ, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মুনতাসির মামুন প্রমুখ।

ব্রেকিংনিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.