শনিবার প্রচারণায় নামছেন তাবিথ, বললেন বিজয় সুনিশ্চিত

বিএনপির প্রার্থী তাবিথ আউয়াল শনিবার ভোট প্রচারণায় নামছেন। দল যে তাকে মনোনয়ন দেবে এ বিষয়ে তিনি নিশ্চিত। বুধবার পূর্বপশ্চিমবিডি.নিউজের সঙ্গে একান্ত আলাপচারিতায় একথা জানান ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল।

তিনি দৃঢ়তার সঙ্গে বলেছেন, নির্বাচনে সেনা মোতায়নের প্রয়োজন নেই কিন্তু নির্বাচন কমিশন যদি সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্পন্ন করতে পারে তাহলে আমার বিজয় সুনিশ্চিত।আসন্ন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নিজের পোষ্টার, ব্যানার ও নির্বাচনী ইশতেহার তৈরি করতে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল।বুধবার (১০ জানুয়ারি) সকালে তার কাওরানবাজারের কার্যালয়ে গিয়ে দেখা যায় এমন চিত্র।

পরে তিনি তার নির্বাচনী প্রস্তুতি ও নির্বাচনের সার্বিক কর্মকান্ড নিয়ে পূর্বপশ্চিমের সঙ্গে প্রায় ঘন্টাখানেক একান্তে কথা বলেন।এসময় তাবিথ আউয়াল বলেন, এবার নির্বাচনে আমি ভোটযুদ্ধের ময়দানে শেষপর্যন্ত লড়াই চালিয়ে যাবো। তিনি বলেন, মানুষ ধানের শীষের পক্ষে রায় দেওয়ার জন্য ২৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত অপেক্ষা করতে চায় না।

তারা পারলে আজকেই ভোট দিয়ে ধানের শীষের জয় নিশ্চিত করতে চায়। নিজের জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী বলেও জানান তাবিথ।নির্বাচনে সেনা মোতায়েন চান কিনা জানতে চাইলে তাবিথ আউয়াল বলেন, আমরা আহামরি কিছু চাই না। একটি সুষ্ঠু অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন চাই। সুষ্ঠু নির্বাচন করতে যা যা করা প্রয়োজন আশাকরি নির্বাচন কমিশন আইন ও বিধি মোতাবেক তার সবই করবে। সুষ্ঠু নির্বাচন করতে যেসব বাহিনী দরকার নির্বাচন কমিশন সেসব বাহিনী নিয়োজিত করবে।

নির্বাচনী লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি দাবি জানিয়ে তাবিথ আরো বলেন, এখনও নির্বাচনী পরিবেশ তৈরি হয়নি। আমরা এখনও নির্বাচনী মাঠে নামিনি। অতীতের অভিজ্ঞতা আমাদের ভালো নয়। আমরা একটি লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডে খেলতে চাই। আশাকরি এবার সেই সুযোগ আমরা পাব।তাবিথ আউয়াল বলেন, আমি চাই ভোটাররা যেন একটি ভীতিহীন পরিবেশ সম্পূর্ণ নিরাপত্তার মধ্যে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে।

ভোট দেয়ার পরও তারা যাতে নিরাপত্তার সঙ্গে বাড়ি ফিরতে পারে। এমন পরিবেশ করতে পারলে নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় থাকবে।দল থেকে চূড়ান্তভাবে মনোনয়ন প্রাপ্তির পর নিজের আনুষ্ঠানিক প্রচার শুরু করবেন বলেও জানান তাবিথ আউয়াল।

শনিবারের মধ্যেই তার মনোনয়নের বিষয়টি চূড়ান্ত হয়ে যাবে। তিনি বলেন, আশাকরি দল আমাকে মনোনয়ন দেবে। ইতোমধ্যে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সবুজ সংকেতও পেয়েছেন বলেও জানান তিনি।২০ দলীয় জোটগতভাবে এবার নির্বাচনের ময়দানে নামছেন বিএনপির এই মেয়র প্রার্থী। তিনি বলেন, আগের বারেরও ২০ দলীয় জোটের সর্মথন নিয়েই আমি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতা করেছিলাম।

এবার আমরা জোটগতভাবে প্রতিদ্বন্ধিতা করব। তৃণমুল থেকে ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গেও নির্বাচন নিয়ে তার নিবিড় যোগাযোগ রয়েছে।নির্বাচনী ইশতেহার প্রসঙ্গে টেনে তাবিথ আউয়াল বলেন, ঢাকার সব সমস্যাই আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ। সবার সহযোগিতায় আমরা একটি বাসযোগ্য সবার জন্য ঢাকা গড়ে তুলতে চাই। তারপরও যানজট, ফুটপাত, গ্যাস, পানি, বিদ্যুৎ, দুষণ, বর্জ্য ব্যবস্থাপনার মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় গুলো গুরুত্ব পাবে।

purboposhchim

Check Also

‘হাজী’ পরিবারের বিস্ময়কর উত্থান

পিতার দুই সংসারের দ্বিতীয় পক্ষের সন্তান তিনি। অভাব-অনটনে বেড়ে ওঠা। অর্থভাবে লেখাপড়া করতে পারেননি। কিশোর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Share
Pin