নতুন মন্ত্রীকে ফুল দিতে গিয়ে মারামারি

এ কে এম শাহজাহান কামাল মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়ে বঙ্গভবন থেকে বের হওয়ার পরপরই তাকে ফুল দিতে গিয়ে হট্টগোল বাধালেন লক্ষ্ণীপুরের দুই নেতা।

লক্ষ্ণীপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা শাহজাহান কামাল এবারই প্রথম মন্ত্রী হলেন।

ভেতরে শপথ অনুষ্ঠান চলার সময়ই কয়েকজন নেতাকর্মীকে নিয়ে ফুল হাতে উপস্থিত হন লক্ষ্ণীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান মনির চৌধুরী। তার পাশে আরও কয়েকজন লোক নিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন লক্ষ্ণীপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আজাদ ভূঁইয়া।

প্রধানমন্ত্রী বঙ্গভবন ছাড়ার কয়েক মিনিট পর শাজাহান কামাল যখন বেরিয়ে আসেন, তখন তার সঙ্গে কথা বলতে অপেক্ষায় ছিলেন সাংবাদিকরা।

বঙ্গভবনের প্রধান ফটক পেরিয়ে শাহজাহান কামাল গাড়ি থেকে নেমে সাংবাদিকদের সামনে আসার সময় দুই নেতাই তাকে ফুল দেয়ার চেষ্টা করেন।

আজাদ ফুল দেয়ার পরপরই মনির ফুল দিতে যান। তখন তাকে টেনে-হিঁচড়ে পেছনে এনে কিলঘুষি মারতে থাকেন আজাদ। মনিরও পাল্টা কিলঘুষি দেন।

নতুন মন্ত্রী স্থানীয় দুই নেতাকে শান্ত্ম করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। পরে পুলিশ ও নিরাপত্তাকর্মীরা আজাদ ও মনিরকে দুই দিকে সরিয়ে দেয়।

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার পর শাহজাহান কামাল দুজনকে ডেকে এনে শাসিয়ে দেন। পরে তারা চলে যান। সাংবাদিকরা কথা বলতে চাইলেও তারা কথা বলতে চাননি।

উৎসঃ   যায়যায়দিন

Check Also

খালেদা জিয়ার বিরক্তি, অভিমান, অনাগ্রহ

বিএনপি নেতাদের উপর বেগম জিয়া বিরক্ত। ছেলের উপর তার একরাশ অভিমান আর রাজনীতির উপর তার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Share
Pin