al_photo

৫ জানুয়ারি গুলশান ও বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে সমাবেশ করবে আ.লীগ

রাজধানীর গুলশানে ৫ জানুয়ারি বিজয় র‌্যালি ও সমাবেশ করা হবে করবে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ ও বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ। এক ধরণের কর্মসূচি পালন করবে জেলা, মহানগর, উপজেলা ও থানা শাখা।

রবিবার সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের বার্ষিকী উপলক্ষে এই কর্মসূচির ঘোষণা দেয়া হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ৫ জানুয়ারি রাজধানীর গুলশানে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ ও বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বিজয় র‌্যালি ও সমাবেশ করা হবে। এ ছাড়া জেলা, মহানগর, উপজেলা ও থানা পর্যায়ে একই ধরনের কর্মসূচি পালন করবে দলটি।

জানা গেছে, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের বর্ষপূর্তি ঘিরে প্রতিবছর সমাবেশসহ নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি। আওয়ামী লীগ দিনটি ‘গণতন্ত্রের বিজয় দিবস’ এবং বিএনপি দিনটিকে ‘গণতন্ত্রের হত্যা দিবস’ হিসেবে পালন করে থাকে। এবারও দিনটি ঘিরে গত বছরের মতো সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি চেয়েছিল বিএনপি।

৫ জানুয়ারি ঘিরে রাজধানীসহ সারাদেশে যে কোনো ধরনের সহিংসতা মোকাবেলায় সর্বোচ্চ সতর্ক থাকবেন আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। পোশাকে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি সাদা পোশাকেও গোয়েন্দারা রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় মোতায়েন থাকবেন। এরই মধ্যে রাজধানীর সব ডিসি ও সব থানার ওসিকে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এদিকে ৫ জানুয়ারি সামনে রেখে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ‘গণতন্ত্রের হত্যা দিবস’ পালনে সমাবেশ করার অনুমতি চেয়েছিল বিএনপি। কিন্তু দলটিকে অনুমতি না দিয়ে সেখানে সমাবেশের অনুমতি দেয়া হয়েছে বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামিক পার্টি নামের একটি অখ্যাত নতুন দলকে।

২০১৪ সালের ১ মার্চ আত্মপ্রকাশ করা দলটি সেখানে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জঙ্গি-সন্ত্রাস দমনে আলেম-ওলামাদের ভূমিকা শীর্ষক সমাবেশ করবে।

পুলিশের দায়িত্বশীল একাধিক কর্মকর্তা জানান, ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ২ জানুয়ারি বিএনপিকে ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউশনে কর্মসূচি পালনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া আজ জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে একই স্থানে কর্মসূচি রয়েছে দলটির।

বিএনপির প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী জানান, আজ সোমবার বিএনপির একটি প্রতিনিধি দল ডিএমপিতে যাবেন। তারা সমাবেশের অনুমতি পাওয়ার আশা করছেন।

এ ব্যাপারে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া গণমাধ্যমকে বলেন, আগে আবেদন করায় ৫ জানুয়ারি সোহরাওয়ার্দীতে বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামিক পার্টিকে সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

পুলিশের রমনা বিভাগের ডিসি মারুফ হোসেন সরদার জানান, গত ১১ ডিসেম্বর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করার অনুমতি চেয়ে চিঠি দেয় বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামিক পার্টি। একই স্থানে সমাবেশ করার অনুমতি চেয়ে অন্য দলও পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। তবে মাওলানা ইছমাইল হোসেনের ইউনাইটেড ইসলামিক পার্টিকেই অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামিক পার্টির চেয়ারম্যান মাওলানা ইছমাইল হোসেন বলেন, পুলিশের কাছ থেকে অনুমতি পাওয়ার পরপরই সমাবেশের প্রস্তুতি শুরু করেছেন। তারা সফলভাবে সমাবেশ সম্পন্ন করবেন বলে জানান তিনি।

Check Also

হাজী সেলিমের হাতে জিম্মি লালবাগ?

গতকাল রাতে হাজী সেলিমের পুত্রের হাতে একজন নৌ-বাহিনী কর্মকর্তার লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনার পর মুখ খুলেছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Share
Pin