bnp-flag

মামলা ও গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে বিএনপির বিক্ষোভ আজ

বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াসহ দলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা, হয়রানী ও গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে আজ সোমবার সারাদেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করবে বিএনপি।

রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে এ প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করা হবে।

বিএনপির চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান এর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা ও গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে এবং দলের সিনিয়র নেতৃবৃন্দসহ সারাদেশে লাখ লাখ নেতাকর্মীদের মিথ্যা মামলায় হয়রানীর প্রতিবাদে এই কর্মসূচি পালন করা হবে।

ঢাকা মহানগরীতে থানায় থানায় এবং সারাদেশে জেলা ও মহানগর সদরে বিএনপি’র উদ্যোগে ‘প্রতিবাদ কর্মসূচি’ পালিত হবে।

বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীকে শান্তিপূর্ণভাবে ‘প্রতিবাদ কর্মসূচি’ পালনের জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

জাতীয় ঐক্যের বিকল্প নেই: ফখরুল
ঢাকা: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ক্ষমতায় থাকার লোভে গণতন্ত্রকে ধ্বংস করেছে সরকার। জাতীয় ঐক্যের কোনো বিকল্প নেই।

বিজয় দিবস উপলক্ষে রাজধানীতে রবিবার শোভাযাত্রার আয়োজন করে বিএনপি। শোভাযাত্রা শুরুর আগে পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত সংক্ষিপ্ত সমাবেশে এসব কথা বলেন মির্জা ফখরুল ইসলাম।

মির্জা ফখরুল বলেন, হাজার হাজার নেতাকর্মী আজকে অংশ নিয়েছে। এই কারাগার থেকে আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে। গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে হবে। এই আওয়ামী লীগ সরকার, এই ফ্যাসিস্ট সরকার, শুধু একদলীয় শাসনব্যবস্থা প্রবর্তন করবার জন্য, ক্ষমতায় টিকে থাকবার জন্য সব গণতান্ত্রিক অধিকার কেড়ে নিয়ে আমাদের আজ পদদলিত করতে চায়।

নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে আবারোও নির্বাচন দাবি করে মির্জা ফখরুল বলেন, গণতন্ত্র রক্ষায় প্রয়োজন জাতীয় ঐক্য।

নয়াপল্টন থেকে শুরু, তারপর নাইটিংগেল পেরিয়ে শান্তি নগর মোড় হয়ে বিপুল সংখ্যক মানুষের অংশগ্রহণে শোভাযাত্রাটি মালিবাগে গিয়ে শেষ হয়। কেবল বিএনপিই নয় সহযোগী সংগঠনগুলোর হাজারো নেতাকর্মী অংশ নেন শোভাযাত্রায়। আটক বিএনপি নেতাকর্মীদের মুক্তি এবং অন্যদের মামলার প্রতিবাদে এ সময় স্লোগান দেন তারা।

সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তেই স্বাধীনতাযুদ্ধ করেছিলাম: ফখরুল
ঢাকা: দেশ ও জাতির কল্যাণে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, ১৬ ডিসেম্বর আমাদের জাতীয় জীবনে এক ঐতিহাসিক গুরুত্বপূর্ণ দিন। দীর্ঘ পরাধীনতার শৃঙ্খল ছিন্ন করে ১৯৭১ সালের এদিনে আমরা প্রিয় মাতৃভূমিকে শত্রুমুক্ত করতে সক্ষম হই। দীর্ঘ ৯ মাসের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধে বিজয়ী হয়ে অর্জন করি স্বাধীনতা।

মির্জা ফখরুল বলেন, এক সাগর রক্তের বিনিময়ে স্বাধীনতা আমাদের শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ অর্জন। গণতন্ত্র এবং অর্থনৈতিক মুক্তির মাধ্যমে একটি সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্য নিয়েই আমরা স্বাধীনতাযুদ্ধ করেছিলাম। সে লক্ষ্য পূরণে আমরা আজও কাজ করে যাচ্ছি। সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমরা আমাদের চূড়ান্ত লক্ষ্যে পৌঁছাতে সক্ষম হবো বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস।

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে শুক্রবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বাণীতে বিএনপির মহাসচিব এসব কথা বলেন।

বাণীতে মির্জা ফখরুল বলেন, মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে আমি দেশবাসী ও প্রবাসী বাংলাদেশি সবাইকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানাই। তাদের সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করি।

তিনি বলেন, স্বাধীনতাযুদ্ধে যারা আত্মদান করেছেন, সে সব বীর শহীদদের স্মৃতির প্রতি আমি গভীর শ্রদ্ধা জানাই। প্রিয় স্বদেশকে স্বাধীন করতে যেসব বীর মুক্তিযোদ্ধা জীবন বাজী রেখে যুদ্ধ করেছেন আমি তাদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানাই।

rtnn

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.