তুরস্কে প্রথম চালকবিহীন মেট্রোলাইনের উদ্বোধন করলেন এরদোগান

তুরস্কে প্রথমবারের মতো চালকবিহীন মেট্রো লাইনের উদ্বোধন করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগান।

শুক্রবার ইস্তাম্বুল শহরে বহুল প্রত্যাশিত এই প্রকল্পটি চালু করা হয়। নতুন এই প্রকল্প ইস্তাম্বুলের ভয়াবহ ট্রাফিক জ্যাম থেকে মানুষকে স্বস্তি দেবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে।

নতুন মেট্রো লাইনটির প্রথম যাত্রার প্রথম যাত্রী হিসেবে আরোহন করার আগে এরাদোগান জনতার উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আমরা ধাপে ধাপে ইস্তাম্বুলের ট্রাফিক ব্যবস্থার লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘অর্থনীতিকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করে যারা আমাদের দেশকে একটি কোনে আবদ্ধ করে রাখতে চেষ্টা করেছিল, এই মেট্রো লাইনের উদ্বোধন তাদের জন্য একটি মোক্ষম জবাব।

২০১৯ সালের নভেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য আইনসভা এবং প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের জন্য এরদোগান ইতোমধ্যেই প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন এবং এ লক্ষ্যে দেশজুড়ে নতুন নতুন অবকাঠামো প্রকল্প নির্মাণের প্রতি জোর দিয়েছেন।

ইস্তাম্বুলের সাবেক মেয়র এরদোগানের জাস্টিজ এন্ড ডেভেলপ পার্টি ২০০২ সালে দেশটির ক্ষমতায় আসার পর থেকেই ইস্তাম্বুল শহর নতুন নতুন অবকাঠামোর যুগে প্রবেশ করে। এরমধ্য অন্যতম কৃর্তি হচ্ছে বসফরাস প্রনালীর ওপর নতুন ব্রিজ নির্মাণ এবং নিচ দিয়ে দু’টি টানেল নির্মাণ।

নতুন মেট্রো লাইনটি ইস্তাম্বুলের এশীয় দিকের ওসকিদার থেকে আরেক এশীয় দিক এমরানাইকে সংযুক্ত করেছে; যেটি পুরোপুরি আবাসিক ও ব্যবসায়িক এলাকা। এই অংশের বাসিন্দারা দীর্ঘ দিন ধরে ভয়াবহ ট্রাফিক জ্যামের শিকার হয়ে আসছেন।

এটি শিগগিরই ইস্তাম্বুলের দূরবর্তী বিমানবন্দর ‘সাবিহা গোকেন’ এর সঙ্গে সংযুক্ত করার পাশাপাশি আরো কয়েকটি স্টেশনে সম্প্রসারণ করা হবে বলে এরদোগান জানান।

একজন রাজনীতিক হিসেবে সাহসী সব প্রকল্পের উদ্যোক্তা হিসেবে আগামী বছরগুলোতে আরো নতুন মেট্রো লাইন চালু হবে বলে দেশটির জনগণ আশা করছে।

সূত্র: এএফপি

জেরুজালেম ইস্যু নিরাপত্তা পরিষদে উত্থাপন করবো: এরদোগান
জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে ট্রাম্পের স্বীকৃতির সিদ্ধান্ত বাতিলের জন্য তুরস্কের পক্ষ থেকে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে উত্থাপনের জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোগান।

শুক্রবার কনোয়া রাজ্যের সেন্ট্রাল আনাতোলিয়া শহরে এক টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে জনতার উদ্দেশ্যে এরদোগান এই কথা বলেন।

দুই দিন আগে ইস্তাম্বুলে মুসলিম নেতাদের বৈঠকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের নিন্দা জানান এবং ফিলিস্তিনের রাজধানী হিসেবে পূর্ব জেরুজালেমকে স্বীকৃতি দেওয়ার বিশ্বের প্রতি আহ্বান জানান।

এরদোগান বলেন, ‘এই অন্যায় সিদ্ধান্ত বাতিলের জন্য আমরা প্রথমত জাতিসংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিলে পেশ করব এবং যদি সেখানে কোনো ভেটো আসে, তাহলে আমরা জেনারেল অ্যাসেম্বলিতে যাব।’

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র জাতিসংঘ সিকিউরিটি কাউন্সিলের স্থায়ী সদস্য হওয়ায় দেশটির হাতে ভেটো ক্ষমতা রয়েছে। এই কারণে নিরাপত্তা পরিষদে ওয়াশিংটনের সিদ্ধান্ত বাতিলের যেকোনো পদক্ষেপ বাধার সম্মুখীন হবে, সে ব্যাপারে কোনো সন্দেহ নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.