amir_khasru

`রাজনৈতিক-অর্থনৈতিক দুর্বৃত্তায়নের বিরুদ্ধে ছিলেন মহিউদ্দিন’

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র মহিউদ্দিন চৌধুরী সাধারণ মানুষের রাজনীতি করতেন মন্তব্য করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, চট্টগ্রামের রাজনীতিতে দলীয়ভাবে আমাদের ভিন্ন মত থাকলেও, আমাদের মধ্যে এক ধরনের সদ্ভাব সব সময় ছিল।

কখনোই সেটা সাংঘর্ষিক পর্যায়ে যেতে দেওয়া হয়নি। সেখানে মহিউদ্দিন চৌধুরীর অবস্থান খুবই ভালো ছিল।

মহিউদ্দিন চৌধুরীর মৃত্যুর খবর শুনে শুক্রবার দুপুরে তার বাসায় যান আমীর খসরু। সেখানে সাংবাদিকদের কাছে এ মন্তব্য করেন বিএনপি স্থায়ী কমিটির এই সদস্য।

বিএনপির এই নেতা আরো বলেন, সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে, সাধারণ মানুষের রাজনীতি করেছেন উনি। মানুষের কাছে যেতে পেরেছেন। মানুষের স্বার্থ সংরক্ষণে অনেক সময় বিতর্কিত সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন। রাজনৈতিক-অর্থনৈতিক দুর্বৃত্তায়নের বিরুদ্ধেও তিনি অবস্থান নিয়েছেন। সেটা রাজনীতিতে একটি বড় গুণ।

মহিউদ্দিন চৌধুরী সাধারণ মানুষের রাজনীতি করে উঠে এসেছেন জানিয়ে আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী আরো বলেন, তার চলে যাওয়াটা সাধারণ মানুষের রাজনীতিতে প্রভাব ফেলবে।

এ সময় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, মানুষের কাছে তার (মহিউদ্দিন চৌধুরী) জনপ্রিয়তা অবিসংবাদিত, প্রশ্নাতীত। তার মৃত্যুতে বাংলাদেশের অপূরণীয় ক্ষতি হলো।

দীর্ঘদিন ধরে হৃদযন্ত্র, কিডনি ও ডায়াবেটিস রোগের সমস্যায় ভুগছিলেন মহিউদ্দিন চৌধুরী। গতকাল হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাতে তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। বৃহস্পতিবার দিবাগত ভোররাতে চট্টগ্রামের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান আওয়ামী লীগ নেতা মহিউদ্দিন চৌধুরী। তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর। তিনবার নির্বাচিত এই মেয়রের মৃত্যুতে চট্টগ্রামের রাজনৈতিক অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

১৯৪৪ সালের ১ ডিসেম্বর চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার গহীরা গ্রামে জন্ম নেন এই নেতা। ১৯৯৪ সালে প্রথমবারের মতো মেয়র নির্বাচিত হন।

কারচুপির মাধ্যমে আবারো ক্ষমতায় যাওয়ার চেষ্টা আ.লীগের: আমীর খসরু
ঢাকা: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, কারচুপির মাধ্যমে আবারো ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য নির্বাচনী প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার।

তিনি বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনকে ঘিরে আওয়ামী লীগ নানা ধরণের প্রকল্প হাতে নিয়ে এগুচ্ছে।

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

‘নতুন নির্বাচন কমিশন এবং আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন’ শীর্ষক আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ ডেমোক্রেটিক কাউন্সিল নামের বিএনপিপন্থি একটি সংগঠন।

আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, আওয়ামী লীগ বহুবিধ নির্বাচনী প্রকল্প নিয়ে এগুচ্ছে। প্রকল্পের মধ্যে রয়েছে খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলা দিয়ে নির্বাচন থেকে দূরে রাখা, তারেক রহমানকে দুরে রাখা সর্বোপরি বিএনপির সিনিয়র নেতাদের নির্বাচন থেকে দূরে রাখা।কিন্তু সরকারের এই প্রকল্প কখনো বাংলাদেশের মাটিতে বাস্তবায়ন হবে না। দেশের মানুষ তা কখনো মেনে নেবে না।

তিনি বলেন, এসব ষড়যন্ত্র করে কোনো লাভ হবে না। আপনাদের এসব প্রকল্প জনগণ প্রতিহত করবে। বিএনপি আপনাদের খারাপ রাজনীতিকে ভালো রাজনীতি দিয়ে মোকাবলো করবে।

নবগঠিত নির্বাচন কমিশন প্রসঙ্গটেনে তিনি বলেন, একটি সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য যে ধরণের কমিশন করা উচিত ছিল তার সবগুলো শর্ত ভঙ্গ করেছে সরকার। নির্বাচন কমিশন গঠনে সরকারদলীয়দের প্রস্তাবনা প্রাধান্য পাওয়ায় রাষ্ট্রপতির ওপর জাতির আর কোনো আস্থা নেই।

rtnn

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.