নির্বাচনের উপযুক্ত পরিবেশ সৃষ্টির দায়িত্ব সরকারের : জামায়াত

‘নাকে খত দিয়ে নির্বাচনে আসবে বিএনপি’ গত ৭ ডিসেম্বর গণভবনে সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া এমন বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমির ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মুজিবুর রহমান আজ রোববার এক বিবৃতিতে বলেন, প্রধানমন্ত্রী যে বক্তব্য দিয়েছেন তা কোনো গণতন্ত্রের ভাষা হতে পারে না।

তার এ বক্তব্যে দেশবাসী বিস্মিত হয়েছে। দেশের প্রধানমন্ত্রীর কাছে থেকে এ ধরনের কটাক্ষপূর্ণ, অগণতান্ত্রিক, অশালিন ও অসৌজন্যমূলক বক্তব্য দেশবাসী আশা করে না।

তিনি বলেন, বর্তমানে দেশে যে রাজনৈতিক অস্থিরতা ও অনিশ্চয়তা বিরাজ করছে তা থেকে উত্তরণের একমাত্র পথ একটি নিরপেক্ষ কেয়ারটেকার সরকারের অধীনে সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ জাতীয় সংসদ নির্বাচন।

এ ধরনের নির্বাচনের জন্য উপযুক্ত পরিবেশ সৃষ্টি করার প্রধানতম দায়িত্ব বর্তমান সরকারের। সেদিকে ভ্রুক্ষেপ না করে প্রধান বিরোধী দলকে লক্ষ্য করে প্রধানমন্ত্রী অশালিন ও কটাক্ষপূর্ণ মন্তব্য করে প্রমাণ করলেন যে, তারা সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন চান না। তারা ২০ দলীয় জোটকে নির্বাচনের বাইরে রেখে পুনরায় ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির ভোটারবিহীন একতরফা নির্বাচনের নাটক করতে চান।

তাদের এ ধরনের নির্বাচনের প্রয়াস দেশবাসী মেনে নিবে না। ভোটারবিহীন প্রহসনের নির্বাচনের অপচেষ্টা চালানো হলে দেশে বিরাজমান রাজনৈতিক সংকট আরো প্রকট আকার ধারণ করবে। প্রহসনের নির্বাচনের অপপ্রয়াস চালানো হলে তার পরিণতি কারো জন্যই শুভ হবে না।

তিনি একটি নিরপেক্ষ কেয়ারটেকার সরকারের অধীনে সব দলের অংশগ্রহণে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ সৃষ্টির স্বার্থেই এ ধরনের কটাক্ষপূর্ণ, উস্কানীমূলক ও অশালিন বক্তব্য প্রদান করা থেকে বিরত থাকার আহবান জানান। বিজ্ঞপ্তি।

উৎসঃ   নয়াদিগন্ত

Check Also

‘হাজী’ পরিবারের বিস্ময়কর উত্থান

পিতার দুই সংসারের দ্বিতীয় পক্ষের সন্তান তিনি। অভাব-অনটনে বেড়ে ওঠা। অর্থভাবে লেখাপড়া করতে পারেননি। কিশোর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Share
Pin