tabid_aoual

তাবিথ এবারও বিএনপির প্রার্থী?

রাজধানী ঢাকার উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে নির্বাচন হলে অংশ নেবে বিএনপি। এ ব্যাপারে দলের নীতিগত সিদ্ধান্ত নেওয়া আছে। দলের দায়িত্বশীল একাধিক সূত্র জানায়, বিএনপির প্রার্থীও মোটামুটি ঠিক আছে। গতবারের মেয়র পদপ্রার্থী তাবিথ আউয়ালকে এবারও প্রার্থী করা হতে পারে।

তবে বিএনপির নেতাদের মনে সংশয়, সরকার এই সময়ে ঢাকা শহরে নির্বাচন দেবে কি না। কারণ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রাক্কালে ঢাকায় মেয়র নির্বাচন ক্ষমতাসীনদের জন্য ‘উভয়সংকট’ হয়ে উঠতে পারে।

বিএনপির নেতারা মনে করছেন, সরকারের যে অবস্থা, তাতে ভালো নির্বাচন করলে হারার ঝুঁকি আছে। আর গত সিটি নির্বাচনের মতো এবারও জোরজবরদস্তি করে জিতলে তা বর্তমান সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠানকে প্রশ্নবিদ্ধ করবে। একই সঙ্গে নির্বাচন কমিশনও

মানুষের আস্থা হারাবে। এসব কারণে সরকার কৌশলে নির্বাচন এড়ানোর চেষ্টা করতে পারে। তবে নির্বাচন কমিশন ঢাকা উত্তর সিটির তফসিল ঘোষণা করলে বিএনপি শক্তভাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে।

দলের স্থায়ী কমিটি ও ভাইস চেয়ারম্যান পদের চারজন নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গতবারের মেয়র পদপ্রার্থী তাবিথ আউয়ালকে এবারও প্রার্থী করা হতে পারে। তাবিথ বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টুর বড় ছেলে। তবে সিটি নির্বাচনে প্রার্থিতা নিয়ে এখন পর্যন্ত দলের কোনো পর্যায়ে আলোচনা হয়নি।

২০১৫ সালে ঢাকা উত্তর সিটির নির্বাচনে তাবিথ আউয়াল প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন। তিনি ‘বাস’ প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে প্রায় তিন লাখ ভোট পান। যদিও ভোট শুরুর তিন ঘণ্টার মাথায় নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছিল বিএনপি।

জানতে চাইলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, ‘নির্বাচন দিলে বিএনপি অংশ নেবে। আমাদের গতবারের প্রার্থীও আছেন। আবার নতুন অনেকেও আগ্রহী। নির্বাচনের প্রক্রিয়া শুরু হলে এ নিয়ে সিদ্ধান্ত হবে।’

গত বৃহস্পতিবার মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুর পর স্থানীয় সরকার বিভাগ ঢাকার উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদটি শূন্য ঘোষণা করে। এরই মধ্যে নির্বাচনী আলোচনা শুরু হয়। আগ্রহী প্রার্থীরাও গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলছেন। বিএনপির প্রার্থী হিসেবে আবদুল আউয়াল মিন্টু ও মেজর (অব.) কামরুল ইসলাম এবং ২০ দলীয় জোটের শরিক বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির (বিজেপি) চেয়ারম্যান আন্দালিব রহমানের (পার্থ) নামও আলোচনায় এসেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আবদুল আউয়াল মিন্টু প্রথম আলোকে বলেন, ‘নির্বাচন হবে? বিএনপি কি প্রার্থী বদলাবে? আমি এর কিছুই জানি না।’

বিএনপির দায়িত্বশীল একটি সূত্র জানায়, গত সোমবার বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে তাঁর গুলশানের কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করেন আবদুল আউয়াল মিন্টু ও মেজর (অব.) কামরুল ইসলাম ও আন্দালিব রহমান। তাঁদের একজন ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচনে প্রার্থিতা নিয়ে কথা তুললে খালেদা জিয়া আগের প্রার্থী তাবিথ আউয়ালের কথা বলেন।

উৎসঃ   prothom-alo

Check Also

২০২৩ সালে ক্ষমতায় যাওয়ার রোড ম্যাপ করছে বিএনপি?

‘আগামী দিনের বিএনপির নেতৃবৃন্দ’ এই শিরোনামে লন্ডনে বিএনপির পলাতক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক জিয়া সারাদেশে নেতৃবৃন্দের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Share
Pin