dudu

তুমুল আন্দোলনের আভাস দিলেন দুদু

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, আগামী নির্বাচনে সহায়ক সরকারের দাবিতে তুমুল আন্দোলন হবে যা প্রধানমন্ত্রী ভাবতেই পারছেন না।

তিনি বলেন, আগামীতে যে আন্দোলন হবে সেটি বিএনপি বা ২০ দলের নয়, জনগণের আন্দোলন হবে। নির্বাচন হবে আমরাও নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবো। কিন্তু সেই নির্বাচনে আপনি (শেখ হাসিনা) সরকার প্রধান থাকতে পারবেন না।

শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার পরিষদ আয়োজিত এক গোলটেবিল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি প্রফেসর রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং মহাসচিব আ স ম মোস্তফা কামালের সঞ্চালনায় এ সময় আরও বক্তব্য দেন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিষ্টার মওদুদ আহমেদ, স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা, নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের রহমত উল্লাহ, জিনাফ সভাপতি মিয়া আনোয়ার, ছাত্রদলের দপ্তর সম্পাদক আব্দুস ছাত্তার পাটোয়ারী প্রমুখ।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে ‘বাংলাদেশের বর্তমান মানবাধিকার পরিস্থিতি’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

শামসুজ্জামান দুদু বলেন, বাংলাদেশের যা কিছু অর্জন সবকিছুই ছাত্র আন্দোলনের মাধ্যমে রচিত হয়েছে। স্বাধীনতা যুদ্ধ, ভাষা আন্দোলন কোন কিছুই আন্দোলন ছাড়া অর্জিত হয়নি। সেই আন্দোলন ছাড়া আমরা চলমান সংকটের মীমাংসা চাচ্ছি। আমরা চাচ্ছি একটা ভোটের পরিস্থিতি সৃষ্টি হোক, আমরা ভোট কেন্দ্রে গিয়ে সরকারকে উপযুক্ত জবাব দেই।

প্রধানমন্ত্রী আপনার মাথায় তো অনেক বুদ্ধি আপনি তো বঙ্গবন্ধুর কন্যা। আপনার এত ভয় কিসের? আপনি তো অনেক উন্নয়ন করেছেন। একটি সুষ্ঠু নির্বাচন দিয়ে আপনার জনপ্রিয়তা যাচাই করুন যোগ করেন দুদু।

বিএনপির নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, বেগম জিয়ার জেল হবে কি হবে না এটা নিয়ে একটা আলোচনা আছে। আমরা কেউ কেউ মনে করছি জেল হয়ে গেলে দেশে তোলপার হয়ে যাবে। সরকারও এটা চিন্তা করে। আমরা রাস্তায় না নামলে তোলপার হবে কি করে? ফ্যাসিবাদের কাজ হচ্ছে মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে দেয়া। ফ্যাসিবাদের কৃতিত্ব আর যাই বলি তাদের কাজ হল মানুষকে ঘরের বাহিরে না আনা। এটাকে ভাঙতে হবে। এই ভাঙতে পারা মানেই হলো নির্বাচনে জয়লাভ করা।

গতকাল দেয়া প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের জবাবে কৃষক দলের এই সাধারণ সম্পাদক বলেন, গতকাল প্রধানমন্ত্রী বক্তৃতা করেছেন। প্রধানমন্ত্রী যে ভঙ্গিতে কথা বলেছেন তাতে বুঝা গেছে দেশে ভাল নির্বাচনের সুযোগ নাই। ধারণা করা হচ্ছে তিনি আবারও ৫ জানুয়ারি মার্কা আরেকটি নির্বাচন করবেন।

সবকিছুতে সরকারের সংবিধানের দোহায় দেয়ার তীব্র সমালোচনা করে বিএনপির এই শীর্ষ নেতা বলেন, প্রধানমন্ত্রী খুব ভালবাসেন সংবিধান। আওয়ামী লীগ খুব ভালবাসে সংবিধান এত ভালবাসা অন্য কিছুতে আছে কিনা সেটা জানা নেই। কিছু বুদ্ধিজীবী আছেন যারা আওয়ামী ঘরানার তাদেরও প্রেম সংবিধানকে ঘিরে। বর্তমানে সকল সমস্যার মূলে রয়েছে বর্তমানের এই সংবিধান। এই সংবিধান দিয়ে বাংলাদেশে ভাল কিছু করা সম্ভব না। এটার প্রধান অন্তরায় হচ্ছে একটি সুষ্ঠু এবং গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত করা।

দুদু গ্রেপ্তারে চুয়াডাঙ্গায় মিছিল-সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত ৫

চুয়াডাঙ্গা: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদুকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে তার নিজ জেলা চুয়াডাঙ্গায় বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে।

রবিবার রাত ১১ টার দিকে বিএনপি, এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা মিছিল করলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। এদে সদর থানার ওসিসহ পাঁচজন আহত এবং ছাত্রদলের দুইজনকে আটক করে পুলিশ।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মিছিলটি শহর প্রদক্ষিণ করার সময় প্রিন্স প্লাজা মার্কেটের সামনে পৌঁছায়। এ সময় পুলিশ বাধা দিয়ে লাঠিচার্জ করে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

এরপর শহরের কানাপুকুর পাড়ার আহম্মদ আলীর ছেলে ছাত্রদলের জেলা কমিটির সদস্য আহসান হাবিব মামুন (২৫) ও তার সহোদর এহসান হাবিব মানিককে (২২) আটক করার সময় পুলিশের সঙ্গে নেতাকর্মীদের ধস্তাধস্তি ও ধাওয়া পাল্টা হয়। এসময় সদর থানার ওসি (তদন্ত) এএইচএম কামরুজ্জামানসহ পাঁচজন বিএনপি নেতাকর্মী আহত হয়।

বিএনপির জেলা যুগ্ম-আহ্বায়ক ওয়াহেদুজ্জামান বুলা জানান, পুলিশ শান্তিপূর্ণ মিছিলের উপরে লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এতে বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়। এ সময় পুলিশ ছাত্রদলের দুই নেতাকে আটক করে গেছে।

সদর থানার ওসি (তদন্ত) এএইচএম কামরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

উৎসঃ   আরটিএনএন

Check Also

২০২৩ সালে ক্ষমতায় যাওয়ার রোড ম্যাপ করছে বিএনপি?

‘আগামী দিনের বিএনপির নেতৃবৃন্দ’ এই শিরোনামে লন্ডনে বিএনপির পলাতক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক জিয়া সারাদেশে নেতৃবৃন্দের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Share
Pin