tofayel

নির্বাচনে না যাওয়ার ভুল বিএনপি আর করবে না : তোফায়েল

বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি বিএনপি নির্বাচন না করে ভুল করেছে। আশা করি এ ভুল বিএনপি আর করবে না।

রবিবার গাজীপুর সিটি করপোরেশনের পূবাইল আদর্শ কলেজ মাঠে নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে ছাত্র-যুব সমাবেশ প্রধান অতিথির বক্তব্য শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, নির্বাচন হবে বর্তমান সংবিধান অনুযায়ী। সংবিধান বলে-নির্বাচনকালীন সময়ে যে ক্ষমতাসীন দল সেই দলই ক্ষমতায় থাকবে। যেটা আছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, সিঙ্গাপুর, ভারতসহ বিভিন্ন দেশে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে সেইভাবে ক্ষমতাসীন দল ক্ষমতায় থাকবে। কিন্তু অন্তর্বর্তীকালীন সরকার হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে দৈনন্দিন কাজের মধ্য দিয়ে, আর নির্বাচন পরিচালনা করবে নির্বাচন কমিশন।

তত্ত্বাবধায়ক সরকার বা সহায়ক সরকারের দাবিতে বিএনপির আন্দোলন-সংগ্রামে যাওয়ার চিন্তা-ভাবনার দিকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, এটা কোনদিন বাস্তবায়ন হবে না এবং এগুলো কোনদিন আলোর মুখ দেখবে না। সুতরাং নির্বাচন করতে হলে বর্তমান সরকারের অধীনে এবং এই নির্বাচন কমিশনের তত্ত্বাবধানে নির্বাচন করতে হবে, এর বাইরে বিকল্প কিছু নেই।

আগাম নির্বাচন সম্পর্কে তোফায়েল আহমেদ বলেন, ”আগাম নির্বাচন এটা প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ার।

পৃথিবীর প্রত্যেক দেশেই আগাম নির্বাচন হয়, পদ্ধতি আছে। আমাদের সংবিধানেও আছে, যদি সরকার মনে করে হতে পারে। আর সরকার যদি মনে না করে তাহলে ২০১৯ সালের ২৯ জানুয়ারির আগের ৯০ দিনে মধ্যে যে কোনো দিন নির্বাচন হবে। ”

আগাম নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগের অবস্থা সম্পর্কে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ”আমাদের অবস্থান তো খুবই ভাল, আমরা বাংলাদেশের মানুষের জন্য এত উন্নয়নমূলক কাজ করেছি। এত কাজ করার পরও আমরা কেন বিজয়ী হবো না। ইনশাল্লাহ আগামী নির্বাচনেও আবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ বিজয়ী হবে এবং সরকার গঠন করবে। ”

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকির সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট আজমত উল্লাহ খান,

সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলম, গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ রাসেল শেখ, ব্র্যাকের ভাইস চেয়ারপার্সন ড. আহমদ মোশতাক রাজা চৌধুরী, নারী নির্যাতন প্রতিরোধকল্পে মাল্টিসেক্টরাল প্রোগ্রামের প্রকল্প পরিচালক ড. আবুল হোসেন, গাজীপুর মহানগর যুবলীগের আহবায়ক কামরুল আহসান সরকার রাসেল, পূবাইল আদর্শ কলেজের অধ্যক্ষ মো. কাইয়ুম খান প্রমুখ।

পরে নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধে উদ্যোগী চেঞ্জ মেকারদের মধ্যে ক্রেস্ট বিতরণ করা হয়।

বিডি-প্রতিদিন

Check Also

নির্বাচন পর্যন্ত মাঠে থাকবে বিএনপি : জাহাঙ্গীর

ঢাকা-১৮ আসনে উপনির্বাচনে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী এসএম জাহাঙ্গীর হোসেন বলেছেন, আওয়ামী লীগের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Share
Pin