প্যারিসে মল্লিকার বিরুদ্ধে বাড়িওয়ালার মামলা!

মল্লিকা শেরাওয়াত। বলিউডের আবেদনময়ী অভিনেত্রীদের একজন। সময়ের ব্যবধানে এখন রূপালি পর্দায় খুব একটা দেখা যায় না তাকে। কারণ বিয়ে করে ফ্রান্সের প্যারিসে বাসিন্দা হয়েছেন এ সুন্দরী।

তবে মল্লিকা ভক্তদের জন্য দুঃসংবাদ হল- মল্লিকা বিয়ে করে প্যারিসের যে বাড়িতে আছেন, তার ভাড়া দিতে পারেননি। ফলে বাড়ির মালিক মল্লিকা ও তার স্বামীর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিয়েছেন।

বাড়িওয়ালা জানিয়েছেন, মল্লিকা ও তার স্বামীর কাছে তিনি প্রায় ৮০ হাজার ইউরো পাবেন। তবে সে দম্পতির টাকা থাকা সত্ত্বেও তারা বাড়িভাড়া পরিশোধ করছেন না। এ অবস্থায় তিনি মল্লিকা ও তার স্বামীকে উচ্ছেদের পাশাপাশি বাড়িভাড়া আদায়ে তাদের আসবাবপত্র ও মূল্যবান ঘড়ি আটক করার আবেদন করেছেন।

মল্লিকার স্বামী ফ্রান্সের রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী সিরিল অক্সেনফ্যানস। অনেকদিন ধরে প্রেম করার পর মল্লিকা গোপনে বিয়ে করেন তাকে। গত বছর মল্লিকা তার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্ট্রাগ্রাম অ্যাকাউন্টে সিরিল ও তার বেশ কিছু রোমান্টিক মুহূর্তের ছবি পোস্ট করেন। এবং তার প্রেম জীবনের নানা বিষয় শেয়ার করেন।

একটির ছবির ক্যাপশন মল্লিকা লিখেন, ‘প্রেমে পড়া খুবই সুন্দর একটা অনুভূতি, তুমি যাকে ভালোবাস যদি সেও তোমাকে ভালোবাসে। ’

প্রায় ৪০টি সিনেমায় কাজ করেছেন বর্তমানে ৪১ বছর বয়সী মল্লিকা। তবে এখনও প্যারিসে অবস্থানসহ সম্পূর্ণ বিষয়গুলোকে ধোঁয়াশাতেই রেখেছেন মল্লিকা। সম্প্রতি ভারতীয় সাংবাদিকরা তার ফ্রান্সের বাড়ি নিয়ে প্রশ্ন করলে মল্লিকা সম্পূর্ণ বিষয়টিকে অস্বীকার করে জানিয়েছেন, প্যারিসে কোনো অ্যাপার্টমেন্টই নেই। তাই ভাড়া দেওয়ারও প্রশ্নই আসে না।

সানির সেই আলোচিত বিজ্ঞাপনে নিষেধাজ্ঞায় উত্তপ্ত সোশ্যাল মিডিয়া

‘শিশুমননে কুপ্রভাব ফেলছে’, শুধুমাত্র এই দাবির ভিত্তিতেই সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সাবেক পর্ন তারকা সানি লিওনের কনডমের বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারত সরকার।

ভারতের তথ্য এবং সম্প্রচার মন্ত্রালয়ের তরফ থেকে প্রতিটি টেলিভিশন চ্যানেলের কাছেই একটি সরকারি নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে যেখানে সাফ বলা হয়েছে, ‘সকাল ৬টা থেকে রাত ১০টা, এই সময়ের মধ্যে কোনওভাবেই কোনও কনডমের বিজ্ঞাপন সম্প্রচার করা যাবে না’।

ভারত সরকারের রক্ষ্মণশীল মনোভাবের বহিঃপ্রকাশেই তেলে বেগুনে জ্বলে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়া। ক্ষোভ মোড় নিয়েছে বিদ্রূপে। টুইটার জুড়ে এখনএই বিষয়ে ট্রোলিংয়ের ঢেউ।

“সকাল ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত যদি কন্ডোমের বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ করা হয় তাহলে ওই সময়ে দরজা বন্ধ থাকুক সিরিয়ালগুলিও”, দাবি উঠছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। টুইটারে ‘টার্গেট’ হয়েছেন ভারতের কেন্দ্রীয় তথ্য মন্ত্রী স্মৃতি ইরানিও।

টুইটার জনতা কটাক্ষ করে বলছেন, ‘স্মৃতি ইরানি কন্ডোম বিজ্ঞাপনের সম্প্রচারে নিষেধাজ্ঞা জারি করার কারণেই বেড়েছে তুলসী’র পরিবার’। উল্লেখ্য, তুলসী ভারতের এক বহুল প্রচলিত ধারাবাহিকের জনপ্রিয় চরিত্র, যেখানে অভিনয় করছেন স্বয়ং স্মৃতি ইরানি। এখানেই শেষ নয় নেটিজেনদের নিশানায় আছেন যোগগুরু রামদেবও। পতঞ্জলি না কি খুব শীঘ্রই আয়ুর্বেদিক কনডম নিয়ে আসছে, এমন বিদ্রুপও করেছেন অনেকে।

বিডি-প্রতিদিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.