erdoyan

জেরুজালেম ইস্যুতে মুসলিম দেশগুলোকে ঐক্যবদ্ধ করতে চান এরদোয়ান

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী স্বীকৃতি দেওয়ার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে মুসলিম দেশগুলোর ঐক্যবদ্ধ করতে চান তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান। মুসলিম বিশ্বের প্রতিক্রিয়া অনিশ্চিত হওয়ায় তাদের ঐক্যবদ্ধ করতে সমন্বয়কের ভূমিকা পালন করার কথাও জানিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এই ঘোষণার আগ পর্যন্ত ফিলিস্তিন ইস্যুতে নিজেকে ‘চ্যাম্পিয়ন’ হিসেবে দাবি করে আসা এরদোয়ান বলেন, ফিলিস্তিন নাগরিকরা মুসলিম সম্প্রদায়ের জন্য অতি গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে বিবেচিত পূর্বাঞ্চলের শহর জেরুজালেমকে তাদের ভবিষ্যত রাজধানী হিসেবে মনে করে।

ট্রাম্পের সতর্কতাকে উপেক্ষা করে এরদোয়ান ইসলামি সহযোগিতা সংস্থা (ওআইসি)-এর বর্তমান চেয়ারম্যান হিসেবে প্যান ইসলামিক গ্রুপের শীর্ষ সম্মেলন আহ্বান করার জন্য তার অবস্থান ব্যাখ্যা করেন।

 ২০১০ সালে তুর্কি জাহাজ গাজার ওপর অবরোধ ভাঙার পর ইসরায়েলের সঙ্গে তুরস্কের সম্পর্কের অবনতি হয়। এরপর ২০১৬ সালে তুরস্ক পুনরায় ইসরায়েলের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনে আগ্রহ দেখায়। তবে এরদোয়ান ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের ইচ্ছার চেয়ে বরং হামাসের সঙ্গেই সম্পর্ক বজায় রাখতেই তুরস্কের জনগণ আগ্রহী বলে মনে করা হয়।

এদিকে, শনিবার এরদোয়ান যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেছেন, বিশ্ব নেতাদের কাজ শান্তি বজায় রাখা, সংঘাত সৃষ্টি করা নয়। তিনি ট্রাম্পের সিদ্ধান্তকে আন্তর্জাতিক আইনের বিরোধী বলে উল্লেখ করেন।

এরদোয়ান বলেন, ইসরায়েল দখলদার রাষ্ট্র। তারা তরুণ ও শিশুদের গুলি করছে। তারা গাজায় এফ-১৬ যুদ্ধবিমান দিয়ে হামলা চালাচ্ছে। আমি স্পষ্ট ও জোরের সঙ্গে বলতে চাই, শক্তিশালী হওয়া মানেই সঠিক নয়।

চলমান সংকটে তুরস্কের ভূমিকা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যদি তুরস্ক দুর্বল হয়ে পড়ে তাহলে ফিলিস্তিন, জেরুজালেম, সিরিয়া ও ইরাক নিজেদের আশাবাদ হারিয়ে ফেলবে।

ট্রাম্পের আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আগে জেরুজালেম নিয়ে সীমা লঙ্ঘন না করতে আহ্বান জানিয়েছিলেন এরদোয়ান। পবিত্র ওই শহরকে ইসরায়েলি রাজধানীর স্বীকৃতি দিলে তেল আবিবের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্নের হুমকিও দিয়েছিলেন তিনি।

বুধবার ট্রাম্পের আনুষ্ঠানিক ঘোষণার পর তিনি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, ক্যাথলিক চার্চের প্রধান ফ্রান্সিস পোপ, ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসসহ অনেক রাষ্ট্রপ্রধানের সঙ্গে জেরুজালেম নিয়ে আলোচনা করেছেন।

সূত্র: এএফপি, আনাদোলু।

Check Also

মুখ ফিরিয়ে নিলেন আত্মীয়স্বজন, হিন্দু বৃদ্ধের সৎকার করলেন মুসলিম যুবকরা

বার্ধক্যজনিত অসুস্থতার কারণে মৃত্যু হয় ভারতের বুলন্দশহরের বাসিন্দা রবিশংকরের। অথচ প্রতিবেশীরা মনে করেন করোনা সংক্রমণের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Share
Pin